logo

Copyright ©2018 HASBD

January 09, 2017

সুস্থ শিশুর ৮ টি লক্ষণ

Category: Baby Health,

সুস্থ শিশুর ৮ টি লক্ষণ

আপনার নবজাতক শিশুর সুস্থতা নিয়ে কি আপনি খুব বেশি চিন্তিত? নিম্নোক্ত ৮ টি বিষয় জানা থাকলে শিশুর সুস্থতা সম্পর্কে আপনি মোটামুটি নিশ্চিন্ত থাকতে পারবেন।

 

১. আপনার সন্তান আপনার স্পর্শ অনুভব করতে পারে এবং সে আপনার কথা শুনতে পায়। আপনার উপস্থিতিতে শিশুর কান্না থেমে গেলে আপনি তার ইমোশনাল ডেভেলপমেন্ট সম্পর্কে নিশ্চিত হতে পারবেন।

 

২. আপনি দিনে ৮ থেকে ১০ বার ডায়াপার চেঞ্জ করেন এবং আপনার শিশুর উচ্চতা প্রতিনিয়ত বৃদ্ধি পাচ্ছে।

 

৩. আপনার শিশু আর চারপাশের পরিবেশ অবজার্ভ করে। সুতরাং সে দিনের একটি নির্দিষ্ট সময় চুপ থাকে।

 

৪. আপনার শিশু যখন কোন শব্দের প্রতি খেয়াল করে ও শব্দটি অনুভব করতে চায় তখন বুঝতে পারবেন যে, তার শ্রবনশক্তির উন্নতি ঘটছে এবং শব্দের ভিন্নতা বোঝার জন্য সে তার মস্তিষ্ক ব্যবহার করতে শিখছে।

 

৫. জন্মের পর প্রথম তিন মাস শিশু পরিষ্কার ভাবে কোন কিছু দেখতে পারে না। ধীরে ধীরে সে বিভিন্ন রং ও মুভমেন্ট বুঝতে পারে। এই সময় ঘরে ফ্যান ছাড়লে বা বন্ধ করলে সে তা বোঝার চেষ্টা করে।

 

৬. শিশু জন্মের ১ মাস পর আই কন্টাক্ট করতে শিখে, ২ মাস বয়স থেকে হাসতে শিখে, ৩ মাস বয়স থেকে মৃদু শব্দ করতে পারে, ৫ মাস বয়স থেকে কেউ তাকে দেখে হাসলে প্রতি উত্তরে সে ও হাসতে পারে । এই সব মাইলস্টোন অর্জনের মাধ্যমে শিশু আপনার সাথে এবং তার চারপাশের পরিবেশের সাথে যোগাযোগ স্থাপন করতে শিখে। এ সব অর্জনের মাধ্যমে আপনি বুঝতে পারবেন শিশুটি ভাষাগত দক্ষতা অর্জন করছে।

 

৭. শিশুর কান্নার পরিমান কম ও ঘুমের পরিমান বেশি হলে বুঝতে পারবেন যে, তার নার্ভাস সিস্টেম পরিপক্ক হচ্ছে।

 

৮. শিশু তার দেহের ওজন নিজেই বহন করতে পারে। সাধারনত ১ মাস বয়স থেকে শিশু ঘাড় সোজা করে বসতে পারে এবং তিন মাস থেকেই সে কারো সহযোগিতা ছাড়া সম্পূর্ণ নিজে নিজের ঘাড় সোজা করে বসতে পারে। এর মাধ্যমের বুঝতে পারবেন স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় শিশুর মাংসপেশি শক্তিশালী হচ্ছে।